Krishak Bandhu Status | কৃষকবন্ধু প্রকল্প স্টেটাস জেনে নিন www.krishakbandhu.net {Online Track}

Krishak Bandhu Status Check Online: We have written this article in Bengali for those who want to know about Krishak Bandhu Scheme or who want to submit application form online. Krishak Bandhu is a scheme through which all the farmers of Bengal can get help. পশ্চিমবঙ্গ সরকার কৃষকদের জন্য একটি নতুন প্রকল্প শুরু করল যার নাম কৃষকদের নাম অনুসারে রাখা হয়েছে কৃষক বন্ধু প্রকল্প।  আপনি যদি কৃষক বন্ধু প্রকল্পের আওতায় থাকতে চান তাহলে আপনাদেরকে আমাদের এই নিবন্ধটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাদের জন্য আমি এই নিবন্ধটি বাংলায় লিখছি। আমাদের টিমের মূল উদ্দেশ্য হলো পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত বাসিন্দাদের সরকারি সুবিধা সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য প্রদান করা। আসুন তাহলে আমরা এই কৃষক বন্ধু প্রকল্পের সুবিধা সংক্রান্ত তথ্য গুলো জেনে নেই এবং তার সঙ্গে জেনে নেওয়া যাক এই প্রকল্পের আওতায় থাকতে হলে আপনাদেরকে কি কি নথি জমা করতে হবে। 

Krishak Bandhu Status Check Online

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের নতুন ফর্ম এখানে ডাউনলোড করুন.

Details of Krishak Bandhu Prakalpa 2022

আপনি যদি পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনি কিন্তু পেয়ে যেতে পারেন কৃষক বন্ধু প্রকল্পের যাবতীয় সুবিধা। আপনি দুয়ারী সরকার শিবিরের মাধ্যমে এস কিউ এর জন্য আবেদনপত্র জমা করতে পারেন। এই প্রকল্পের আওতায় থাকতে হলে আপনাদেরকে বার্ষিক আয়ের এর পে স্লিপ জমা করতে হবে। আবেদনপত্র জমা হয়ে গেলে আপনারা অতি সহজে অনলাইনের মাধ্যমে আপনার আবেদনপত্র ট্র্যাক করতে পারবেন অর্থাৎ আপনার Krishak Bandhu Status চেক করতে পারবেন। আপনি যদি Krishak Bandhu Status চেক করতে না পেরে থাকেন তাহলে নিচে দেওয়া বিষয়টি ভালো করে জেনে নিন। আশা করছি আপনার মনে আছে আপনি যখন আবেদনপত্র জমা করেছেন তখন সেখান থেকে অর্থাৎ অফিস থেকে আপনাকে একটা আইডি নাম্বার দিয়েছে সেই আইডি নাম্বার দিয়ে আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক করতে পারবেন।

About Krishak Bandhu Prakalpa 2022

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের সুবিধাকৃষক বন্ধু প্রকল্পের মাধ্যমে প্রত্যেক বছর 10 হাজার টাকা এবং ন্যূনতম চার হাজার টাকা প্রদান করা হবে। খরিফ এবং রবিশস্যের জন্য সমান কিস্তিতে দেওয়া হবে। 1 একর বা তার বেশি চাষযোগ্য জমি থাকা কৃষকেরা মাসিক 10000 টাকা সাহায্য পাবে এবং এক একর এর কম চাষযোগ্য জমি থাকা কৃষকেরা চার হাজার টাকা করে পাবেন। 18 থেকে 60 বছরের মধ্যে মৃত কৃষকদের এককালীন 2 লাখ টাকা পরিবারকে দেয়া হবে। 
অন্যান্য সুবিধাকৃষক বন্ধু প্রকল্পের মাধ্যমে কৃষকরা উচ্চমানের বিচ সংগ্রহ করতে পারবে সরকারি দপ্তর গুলি থেকে।
কৃষক বন্ধু প্রকল্পের সুবিধার কথা জানতে কি করতে হবেকৃষক বন্ধু প্রকল্পের সুবিধা গুলি জানতে আপনাদের  অবশ্যই কৃষি দপ্তর এর সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। 

Note : কৃষক বন্ধু প্রকল্পের জন্য তোমাদেরকে অনলাইনে আবেদনপত্র জমা করতে হয়েছে তোমরা যারা আবেদন পত্র অনলাইনের মাধ্যমে জমা করেছ তারা কিন্তু কোন রকম সমস্যা ছাড়াই তোমাদের আবেদনপত্র ট্র্যাক করতে পারবে এবং স্ট্যাটাস চেক করতে পারবে তোমরা যদি তোমাদের আবেদনপত্রের স্ট্যাটাস চেক করতে চাও তাহলে আমাদের নিবন্ধটি ভালো করে ফলো করো।

Latest Update on 30th September 2022- বাংলার জন্য নিয়ে আসা হলো এক নতুন প্রকল্প যার নাম কৃষক বন্ধু প্রকল্প। এই প্রকল্পের জন্য আপনারা বেশ কিছু সুবিধা লাভ করতে পারেন। কৃষকদের কথা মাথায় রেখেই আমাদের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই প্রকল্পটি শুরু করল। তোমরা যারা কৃষক বন্ধু প্রকল্পের জন্য আবেদনপত্র জমা করেছে অথচ কোনো রকম স্ট্যাটাস চেক করতে পারছনা তাদের জন্যই আমরা এই নিবন্ধটি লিখেছি। এই নিবন্ধের মাধ্যমে কিভাবে আপনারা কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক করবেন সেই বিষয়ে তথ্য প্রদান করা হয়েছে।

Krishak Bandhu Status Online – Overview

প্রকল্পের নামকৃষকবন্ধু
বছর2022
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
শুরু করেছেনমাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি
সুবিধার্থি কৃষক
আর্থিক সুবিধা5000
Type of ArticleGovt Schemes
Official Websitewww.krishakbandhu.net
Direct Helpline No.8336957370
Mail IDkrishak.bandhu@ingreens.in
krishak bandhu status form

Important Links of Krishak Bandhu Status 2022

কৃষক বন্ধু সম্পর্কিতClick Here
নথিভুক্ত কৃষকের তথ্যClick Here
কৃষি বিভাগClick Here
আদেশ স্মারকলিপি এবং বিজ্ঞপ্তিClick Here
কো অপারেটিভ ব্যাঙ্কClick Here
হেল্পলাইনClick Here
LoginClick Here
Sign InClick Here

Notes- জানুয়ারী, 2019 এ কৃষি বিভাগ, সরকার। পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিমবঙ্গ “কৃষকবন্ধু” প্রকল্প চালু করেছে যার উদ্দেশ্য ছিল পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত কৃষকদের কৃষি কাজের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা এবং কৃষকদের অকালমৃত্যুর ক্ষেত্রে খামার পরিবারগুলিকে সামাজিক নিরাপত্তা প্রদান করা। সম্প্রতি এই স্কিমটি পুনঃনির্মাণ করা হয়েছে এবং “কৃষক বন্ধু (নতুন)” হিসাবে পুনঃনামকরণ করা হয়েছে। নতুন প্রকল্পটি পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী 17 জুন 2021-এ চালু করেছিলেন।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের প্রয়োজনীয়তা ডকুমেন্টস

  • ভোটার কার্ড
  • আধার কার্ড
  • ব্যাংকের পাসবুক
  • ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার
  • চাষ যোগ্য জমি
  • নিজের নামে জমি না থাকলেও চাষযোগ্য জমির নথি
  • পঞ্চায়েত প্রধানের দেওয়া ওয়ারিশান সার্টিফিকেট

কৃষক বন্ধু {মৃত্যুজনিত সহায়তা} প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস

  • মৃত্যুর শংসাপত্র
  • মৃত কৃষকের ভোটার আইডি & আধার কার্ড
  • যোগ্য দাবিদার এর শংসাপত্র
  • মৃত কৃষকের নামে জমির মধ্যে

How to Apply Krishak Bandhu Prakalpa ?

Krishak Bandhu Status | কৃষকবন্ধু প্রকল্প স্টেটাস জেনে নিন

বিষয়টি বিস্তারিত জানতে নিচের দেওয়া স্টেপ গুলি ভালো করে ফলো করুন-

  • প্রথমত আপনাকে যে কাজটি করতে হবে সেটি অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে। 
  • দ্বিতীয়তঃ আপনার সমস্ত ডকুমেন্টস গুলি জমা করতে হবে। 
  • তৃতীয়তঃ আপনাকে ভোটার কার্ডের নাম্বার টা ফিট করতে হবে। 

কোন কোন ক্ষেত্রে এমনও হতে পারে আপনি রোবট কিনা সেটা জানার জন্য আপনাকে অপশন প্রদান করতে পারে সেক্ষেত্রে আপনি রোবট নন সেই অপশন ক্লিক করুন। 

  • এরপর আপনি আপনার ফরমটি অনলাইনের মাধ্যমে জমা করে দিন। 

আপনার যদি কৃষক বন্ধু প্রকল্প সম্পর্কে আরো বিস্তারিত তথ্য পেতে চান তাহলে আমরা এখানে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক দিয়ে দিয়েছি সেই লিঙ্ক এর মাধ্যমে আপনারা সরাসরি পৌঁছে যাবেন অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে।  এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনারা কৃষক বন্ধুর সুবিধা সংক্রান্ত আরও বিস্তারিত তথ্য পেয়ে যাবেন। 

All The Best!!

Leave a Comment